এখন সময় :
,

সোনাগাজীতে পিকনিকে যেতে প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার ফরমান জারি, শিক্ষকদের ক্ষোভ

জাবেদ হোসাইন মামুুুুন>>>
পিকনিকে ( আনন্দ ভ্রমনে) যেতে শিক্ষকদের বাধ্য করে চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠেছে সোনাগাজী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. হিটলারুজ্জামানের বিরুদ্ধে। পিকনিকে গেলেও নির্ধারিত টাকা দিতে হবে এবং না গেলেও টাকা দিতে হবে এমন ফরমান জারি করলেন ওই শিক্ষা কর্মকর্তা। ইতোমধ্যে বিবদমান দু’গ্রুপের ৪জন শিক্ষক নেতাকে দিয়ে মাথাপিছু ৬০০টাকা হারে চাঁদা আদায় শুরু করেছেন তিনি। এনিয়ে শিক্ষকদের মাঝে তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করলেও কেউ ভয়ে মুখ খুলতে পারছেননা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক শিক্ষক ও শিক্ষক নেতারা অভিযোগ করেন, শিক্ষা কর্মকর্তা মো. হিটলারুজ্জামান কতিপয় শিক্ষককে হাতে নিয়ে উপজেলার সকল প্রাথমিক শিক্ষক নিয়ে আনন্দ ভ্রমনের ঘোষণা দেন। এই উপজেলায় ১০৯টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৬২০জন শিক্ষক কর্মরত রয়েছেন। আগামি ১৯ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লা বার্ডে এই পিকনিকের আয়োজন করা হয়েছে। মাথাপিছু ৬০০টাকা চাঁদাও নির্ধারণ করা হয়। ঘোষণা দেয়া হয় কোন অজুহাত চলবেনা। পিকনিকে গেলেও নির্ধারিত চাঁদা দিতে হবে, না গেলেও চাঁদা দিতে হবে। শিক্ষা কর্মকর্তার এহেন ফরমানজারিতে প্রাথমিক শিক্ষকদের মাঝে চরম অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। একাধিক নারী শিক্ষক রয়েছেন অস্ত:স্বত্বা। কেউবা রয়েছেন অসুস্থ্য। আবার কেউ কেউ নিজেদের দ্বৈনন্দিন কাজকর্মে ব্যস্ত। আবার অনেকেই পিকনিকে যেতে একদম নারাজ রয়েছেন। চাঁদা প্রদান থেকে বাঁচতে বা পিকনিকে না যাওয়ার উপয় খুঁজে পাচ্ছেননা তারা। এতে শিক্ষা কর্মকর্তার চাপিয়ে দেয়া পিকনিক নিয়ে নাম প্রকাশ না করা শর্তে গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে একাধিক শিক্ষক ক্ষোভ ও হতাশা ব্যক্ত করেছেন।
তারা আরো দাবি করেন এত বিশাল বহরের আনন্দ ভ্রমনের সফলতা নিয়েও রয়েছে চরম সংশয়। উপজেলা সরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির নামে দুটি সংগঠন নিয়ে শিক্ষকদের রয়েছে গৃহবিবাদ।
উপজেলা সরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি হুমায়ূন কবির সেলিম ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারন সম্পাদক সুনীল চন্দ্র রায় এ ব্যাপারে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি। তাদের উপর অর্পিত দায়ীত্ব তারা পালন করছেন মাত্র।
এব্যাপারে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. হিটলারুজ্জামান জানান, শিক্ষকদের সাথে আলোচনা করেই পিকনিকের আয়োজন করা হয়েছে। পিকনিক মানে সকলের আনন্দঘন অংশগ্রহন। শিক্ষকদের বিবদমান দু’গ্রুপের স্বত:স্ফুর্ত অংশ গ্রহণে পিকনিকের আয়োজন করায় শিক্ষকদের মধ্যে তৃতীয় একটি শক্তি এসব অপপ্রচার চালাচ্ছে।

নোটিশ :   FeniVision24.com প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মদ তমিজ উদ্দিন, সম্পাদক: জহিরুল হক মিলু
ইমেইল : fenivision@gmail.com, মোবাইল: 01823644138, 01841710509
ঠিকানা: ৪৩১ সোনালী ভবন(২য় তলা) ট্রাংক রোড়, ফেনী