এখন সময় :
,

পুলিশের গুলিতে আহত যুবকের পিতার আকুতি

 

স্টাফ রিপোর্টার->>>>
ফেনীর সোনাগাজীতে ডাকাত আখ্যা দিয়ে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে কথিত বন্দুক যুদ্ধের নাটক করে মো. নূরুল হুদা নামে এক যুবককে পায়ে গুলি করে গুরুতর আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। পঙ্গুত্ব ও মিথ্যা মামলা থেকে বাঁচাতে সাংবাদিকদের কাছে করুন আকুতি জানিয়েছেন আহত যুবকের অসহায় পিতা মো. নূরুল আমিন। তিনি সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, তার বড় ছেলে মো. নূরুল হুদা সোনাগাজী উপজেলার মিয়ার বাজার এলাকার লক্ষ্মীপুর গ্রামে বিয়ে করেছেন। তার ঔরশজাত ৩টি পুত্র সন্তান রয়েছে। গত ২৮ নভেম্বর সে তার শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিল। ওই দিন সন্ধ্যা ৬টার দিকে সোনাগাজী থানার পুলিশ তাকে তার শ্বশুর বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে থানা হাজতে নিয়ে যায়। রাত ২টার দিকে থানা হাজত থেকে বের করে দুইজন পুলিশ তার পা ছেপে ধরলে ওসি মো. হুমায়ুন কবির তার বাম পায়ের হাঁটু থেকে উপরের উরুতে গুলি করে তাকে পঙ্গু করে দেন। পরে বলাবলি করে ডাকাতির সময় পুলিশের বন্দুক যুদ্ধে সে আহত হয়েছে। পুলিশের এই দাবি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। তিনি দাবি করেন তার ছেলে সন্ত্রাসি, ডাকাত বা কোন রাজনৈতিক দলের লোক নয়। সে খেটে খাওয়া একজন নিরপরাধ মানুষ। বর্তমানে সে চট্রগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পুলিশি হেফাজতে চিকিৎসাধীন রয়েছে। অর্থের অভাবে তাকে ভালভাবে চিকিৎসাও করাতে পারছেননা। তাই তিনি তার ছেলেকে পঙ্গুত্ব ও মিথ্যা মামলা থেকে বাঁচাতে সাংবাদিক সহ উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। নূরুল আমিন দাগনভূঞা উপজেলার সেকান্তরপুর গ্রামের বাসিন্দা এবং রামনগর ইউনিয়ন আ’লীগের সদস্য।

নোটিশ :   FeniVision24.com প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

প্রধান সম্পাদক: মোহাম্মদ তমিজ উদ্দিন, সম্পাদক: জহিরুল হক মিলু
ইমেইল : fenivision@gmail.com, মোবাইল: 01823644138, 01841710509
ঠিকানা: ৪৩১ সোনালী ভবন(২য় তলা) ট্রাংক রোড়, ফেনী